আল্লাহকে সম্মান দেওয়া ও তাকে গালমন্দকারীর বিধান

বর্ণনা

সাধারণ মানুষের মধ্যে আল্লাহ তা‘আলাকে গালি দেওয়া, তাঁকে খারাপ গুণ প্রদান করা, তাঁর উদ্দেশ্যে এমন বাজে শব্দ ব্যবহার প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে, যা মুখে আনতে ও শুনতে একজন মুমিন কুণ্ঠাবোধ করে, অথচ তা ব্যাপক ভয়াবহ রূপ লাভ করেছে। হয়ত এমন লোকরাই তা বলে, যারা নিজেদেরকে মুসলিম বলে গণ্য করে; কারণ তারা শাহাদাতের কালেমাদ্বয় (লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ ও মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ) উচ্চারণ করে থাকে। আবার কখনও কখনও এ জাতীয় গালি কোনো কোনো মুসল্লি তথা নামাযীদের কাছ থেকে প্রকাশ পায়, শয়তান এগুলো তাদের মুখ দিয়ে বের করে আর তাদের মনে উঠিয়ে ধরে যে, তুমি তো আর এটা উদ্দেশমূলকভাবে বলছ না! আর তুমি তো স্রষ্টাকে অসম্মান করার ইচ্ছা করছ না! তাছাড়া শয়তান তাদের মনে আরও শোভন করে দেয় যে, এগুলো এমনসব অর্থহীন কাজ, যার কাছে বেশি অবস্থান করার চিন্তা-ভাবনা করার প্রয়োজন নেই ! এভাবেই যারা আল্লাহকে গালি দেয় ও মন্দগুণ গুণান্বিত করে তারা বিষয়টিকে খুব সহজ করে নিয়েছে। অথচ এটা হচ্ছে বড় কুফরি ও বড় ধরণের অপরাধ। এ গ্রন্থে এ বিষয়টির ভয়াবহতা ও বিধান তুলে ধরা হয়েছে।

Download
আপনার মতামত আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ