• video-shot

    YOUTUBE

    ইসলাম ধর্ম হালাল ও পবিত্র রুজি উপার্জন করার প্রতি উৎসাহ প্রদান করে।

  • video-shot

    YOUTUBE

    ইসলাম ধর্মের মধ্যে নতুন কোনো বিষয় ধর্মের কর্ম হিসেবে সংযুক্ত করা বৈধ নয়।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “হারাম মাসের মর্যাদা” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিও লেকচারটিতে সম্মানিত আলোচক ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী হারাম মাসের গুরুত্ব ও মর্যাদা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন। আলোচক উল্লেখ করেন, আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘প্রকৃতপক্ষে আল্লাহর কাছে মাসের সংখ্যা ১২টি, যা আল্লাহর কিতাব অনুযায়ী সেই দিন থেকে চালু আছে যে দিন আল্লাহ তা‘আলা আকাশমণ্ডলী ও পৃথিবী সৃষ্টি করেছিলেন। এর মধ্যে চারটি মাস মর্যাদাপূর্ণ। এটিই দীন (এর) সহজ সরল (দাবী)। (সূরা আত-তাওবাহ, আয়াত: ৩৬)। উল্লিখিত চারটি মাস হলো যিলকদ, যিলহজ, মুহাররাম ও রজব। এসব মাসে যুদ্ধ-বিগ্রহ, কলহ-বিবাদ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এ মাসের আমলকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। একটি হলো বর্জনীয় আমল, অন্যটি হলো করণীয় আমল। অর্থাৎ হারাম মাসের বর্জনীয় কাজসূমহ থেকে বিরত থাকতে হবে এবং রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নির্দেশ মোতাবেক করণীয় আমলসূমহ করার মাধ্যমে হারাম মাসের মর্যাদা সুমুন্নত করতে হবে।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “হজ শিক্ষা পর্ব ৩” শীর্ষক ভিডিও লেকচারটিতে, হজের মধ্যে আল্লাহ তা‘আলা দুনিয়া ও আখিরাতের নানাবিধ কল্যাণ অর্জনকে হজের লক্ষ্যমাত্রা ও মূলমর্ম বলে উল্লেখ করেন সম্মানিত আলোচক ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী। আলোচক আরো উল্লেখ করেন যে, হজের সাথে সংশ্লিষ্ট সকল স্থান ও কালকে সম্মান করা, হজের মাধ্যমে পরকালকে স্মরণ করা, কিয়ামতকে স্মরণ করা, আর হজের সবচেয়ে বড় শিক্ষা হলো হজের মাধ্যমে তাকওয়া অর্জন নিশ্চিত করা এবং হজের মাধ্যমে আমরা যেন পরকালের মুক্তির দিশা লাভ করতে পারি সেদিকে পূর্ণ দৃষ্টি রাখা।

  • video-shot

    YOUTUBE

    হজের শিক্ষার মধ্যে যে বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ তা হলো হজের নানা প্রকার আমল এখলাসের সহিত সম্পন্ন করা। হজের মূল শিক্ষা হলো তাওহীদ তথা একত্ববাদের চর্চা ও প্রতিষ্ঠা করা। সম্মানিত আলোচক উল্লেখ করেন যে, হজে ইবাদাত পালনে ইখলাস ও ঐকান্তিক নিষ্ঠা যেন অর্জিত হয় এবং রিয়া ও প্রদর্শনেচ্ছা থেকে যেন দূরে থাকা যায় সে জন্য মহান রবের দরবারে আকুতি-মিনতি তাওহীদমুখিতারই বহিঃপ্রকাশ। তাছাড়া হজের স্থান কা‘বা, সাফা-মারওয়া ও মিনা থেকে আমরা যেসব শিক্ষা লাভ করতে পারি তা উক্ত “হজ শিক্ষা পর্ব ২” শীর্ষক ভিডিও লেকচারটিতে আলোচনা করা হয়েছে।

  • video-shot

    YOUTUBE

    তাকওয়া ও ইবাদাত চর্চার এক রূপময় কর্মশালা এবং শির্ক, কুফর ও বিদ‘আতমুক্ত হয়ে ঈমানের অনুপম মাহত্ম্য অর্জনের এক সমৃদ্ধ পাঠশালা। হজের মধ্যে আল্লাহ তা‘আলা দুনিয়া ও আখিরাতের নানাবিধ কল্যাণের বিপুল সমারোহ ঘটিয়েছেন বলেই সেসব কল্যাণ অর্জনকে তিনি হজের লক্ষ্যমাত্রা ও মূলমর্ম হিসেবে নির্ধারণ করেছেন। আলোচক “হজ শিক্ষা পর্ব ১” শীর্ষক ভিডিও লেকচারটিতে হজের মূল শিক্ষার কয়েকটি বিষয় তুলে ধরেন: যেমন, তালবয়িার মহান ধ্বনি, ইখলাস ও ঐকান্তকিতা, তাওয়াফের পর দু’রাকাত সালাত, সাফা-মারওয়ায় সা‘ঈ করার দো‘আ, আরাফার দো‘আ, হাজারে আসওয়াদ চুম্বন, জামরাতুল আকাবায় কঙ্কর নিক্ষেপের র্পূব র্পযন্ত তালবয়িা পাঠ করা ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করেছেন ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “হজের দিক নিদর্শন” শীর্ষক ভিডিও লেকচারটিতে, হজের গুরুত্ব ও হজের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কিত মূল্যবান বক্তব্য পেশ করে সম্মানিত আলোচক ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী। হজ ইসলামের অন্যতম স্তম্ব। হজের মূল শিক্ষা হলো তাওহীদ। হারাম মাসগুলো কীভাবে মুসলিম অতিবাহিত করবেন, এ মাসগুলো থেকে মুসলিমরা কী শিক্ষা নিবে ও একজন মানুষ হজের সকল কার্যাবলী কীভাবে সম্পন্ন করবেন তা সুন্দরভাবে তুলে ধরেছেন উক্ত ভিডিও লেকচারটিতে।

  • video-shot

    ইখলাস বাংলা

    YOUTUBE

    ইসলামে ইখলাসের প্রতি যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তাই আমরা ইখলাসের (নিষ্ঠার) সাথে ইবাদত করি। কেননা প্রত্যেক আমলের ফলাফল নিয়্যতের ওপর নির্ভরশীল। বিশুদ্ধ নিয়ত ছাড়া আমল গৃহীত হয় না। মুমিন ব্যক্তি তার আমল অনুযায়ী সাওয়াব পেয়ে থাকেন। যার আমল একমাত্র আল্লাহর জন্য হবে, তার আমলই কবুল হবে। যে ব্যক্তি লোক দেখানো আমল করবে, তার আমল কবুল হবে না। আলোচ্য “ইখলাস” শীর্ষক ভিডিওটিতে, ইখলাসের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীতা সম্পর্কিত মূল্যবান বক্তব্য পেশ করেছেন সম্মানিত আলোচক ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া।

  • video-shot

    YOUTUBE

    আলোচ্য ভিডিও লেকচারটিতে সম্মানিত আলোচক উল্লেখ করেন যে, আদম আলাইহিস সালামের পর পৃথিবীতে বেশ কয়েকজন ভালো মানুষ ছিলেন। এর মধ্যে পাঁচজন ব্যক্তি ছিলেন যাদেরকে সবাই তাদের ভালোবাসতো। তাদের মৃত্যুর পর শয়তানের প্ররোচনায় প্রথমে তাদের চিত্র অংকন, অতঃপর পাথর খোদাই করে তাদের মূর্তি বানিয়ে তাদের পূজা শুরু করলো। তখন আল্লাহ তা‘আলা নূহ আলাইহিস সালামকে পাঠালেন। নূহ আলাইহিস সালাম তাদেরকে মূর্তি পূজা করতে নিষেধ করলেন, তার কথা শুনে ধনী ব্যক্তিবর্গ তাকে চুপ করতে বললেন, কিন্তু দরিদ্র দুর্বল লোকেরা তাঁর প্রতি ঈমান আনল। তিনি ৯৫০ বছর মানুষকে আল্লাহর পথে ডেকেছেন। কিন্তু অধিকাংশই আল্লাহর প্রতি ঈমান আনে নি। তখন আল্লাহ তা‘আলা তাকে একটা নৌকা বানাতে নির্দেশ দিলেন, যা দেকে তার কাওমের লোকেরা উপহাস করছিল। নূহ আলাইহিস সালাম তার সাথীদের নিয়ে নৌকায় উঠলেন, বাকি যারা ছিল সবাই মহা প্লাবনে ডুবে মারা গেলেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    আলোচ্য ভিডিওটিতে সম্মানিত আলোচক উল্লেখ করেন, আদম আলাইহিস সালাম ছিলেন প্রথম মানুষ এবং প্রথম নবী। আল্লাহ তা‘আলা মাটি দিয়ে তাকে সৃষ্টি করেছেন এবং তার (আদম) থেকে সকল মানুষকে সৃষ্টি করেছেন, আর বিবি হাওয়া আলাইহাস সালামকে সৃষ্টি করেছেন তার (আদম) পাঁজর থেকে। অতঃপর তাদেরকে প্রবেশ করালেন জান্নাতে এবং তাদেরকে বললেন যা ইচ্ছা খেতে পারো, কিন্তু ঐ গাছটির নিকটেও যেও না। কিন্তু শয়তান তাদেরকে বিভ্রান্ত করলো, ফলে তারা আল্লাহর নিষেধ উপেক্ষা করে ঐ গাছের ফল ভক্ষন করলেন। আল্লাহর আদেশ অমান্য করার কারণে তিনি তাদেরকে জান্নাত থেকে বের করে দিলেন। তারা পৃথিবীতে আগমন করলেন। অতঃপর আদম আলাইহিস সালাম আল্লাহর কাছ থেকে কিছু শিখে নিলেন এবং তা আমল করলেন। ফলে আল্লাহ তাদের ক্ষমা দিলেন। এরপর থেকে তাদের থেকে একের পর এক সন্তান আসল। পৃথিবীতে সকল মানুষ তার সন্তান। তাই মানুষকে বলা হয় বনী আদম।

  • video-shot

    YOUTUBE

    আলোচ্য ভিডিও লেকচারটিতে সম্মানিত আলোচক উল্লেখ করেন, মানবী জীবনে প্রথম কাজ হচ্ছে, তাওহীদ প্রতিষ্ঠা করা, তারপর আল্লাহর বিধানের কাছে আত্মসমর্পন এবং নিজের চারিত্রিক উৎকর্ষ সাধন। কিন্তু তাওহিদ প্রতিষ্ঠা করতে হলে তিনটি কাজ অবশ্যই করতে হবে: জীবনের সমস্ত কর্মকাণ্ড একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য করতে হবে, নিজের নফসের যাতে কোনো অংশ থাকবে না, আল্লাহর নাম এবং গুণ আল্লাহর জন্য স্বীকার করে নিতে হবে, আল্লাহকে তাঁর নাম এবং গুণ দিয়ে তাকে ডাকতে হবে। তারপর ঈমানের মতো করে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে পরিপূর্ণভাবে ইসলামকে অনুসরণ করা। তারপর নিজেরে চরিত্রে সংশোধনী আনয়ন করা।

  • video-shot

    YOUTUBE

    আলোচ্য ভিডিও লেকচারটিতে সম্মানিত আলোচক নিম্নোক্ত বিষয়গুলো আলোচনা করেছেন : সম্পর্ক কী ও তা কার সাথে রক্ষা করা দরকার; কে বন্ধু হতে পারে না, কার সাথে সম্পর্ক নষ্ট করা উচিৎ নয়; বিদ‘আতীদের সাথে কীরূপ সম্পর্ক রাখা উচিৎ; আকীদা বিষয়ক সমস্যার সমাধান কী? হাদীস না মানলে সে ব্যক্তির অবস্থা কেমন হতে পারে? ইত্যাদি

  • video-shot

    YOUTUBE

    “ইসলামী জ্ঞান প্রশ্নোত্তর পর্ব” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, ইন্টারনেট ও স্মার্ট ফোনের কারণে বাচ্চারা যে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে তা থেকে পরিত্রাণের উপায়, যৌথ পরিবার দেবর ও ভাবীর পর্দা লঙ্ঘন এড়াতে করণীয়, বর্তমানে তথাকথিত শিক্ষিত সমাজ আলিমদের মুল্য দিতে চায় না -এ থেকে সমাজ কীভাবে মুক্তি পেতে পারে, যে কোনো ফরয সালাত শেষে ইমাম সাহেব মুসল্লিদের নিয়ে হাত তুলে মোনাজাত করতে পারবে কিনা, যাকাতের টাকা দিয়ে গরীবদের কাপড় কেনা যাবে কিনা, নাকি টাকাই দিতে হবে, গান গাওয়া আর শোনা হারাম কিনা, বাবা দাড়ি না রাখতে চাইলে সন্তানের করণীয়, তারাবীহ-এর সালাত ২০ রাকাত নাকি ৮ রাকাত, স্ত্রী সালাত পড়তে না চাইলে করণীয়, মানসিক অশান্তি দূর করার উপায়, ঈমান ভঙ্গের কারণগুলো কি কি, এ ছাড়াও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ এবং জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্ন-উত্তর নিয়ে উপস্থিত হয়েছেন শাইখ ড. মোহাম্মাদ মানজুরে এলাহি।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “রামাদান বিষয়ক জিজ্ঞাসা (নবম পাঠ)” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, রামাদান মাসের ৩০ দিন রহমত, মাগফিরাত ও নাজাত এ ভাগ করা যাবে কিনা, তারাবীর সালাতে ২ রাকাত ৪ রাকাত পর পর যে দো‘আ মোনাজাত আছে তা সঠিক কিনা, একসাথে ৩ তালাক দিলে তা ১ তালাক হিসেবেই গন্য হবে কিনা, রামাদানে কেউ মারা গেলে জাহান্নাম থেকে বাঁচতে পারবে কিনা, বিধর্মীদের সাথে নিয়ে ইফতার করা যাবে কিনা, খাবার হালাল নাকি হারাম তা নির্ধারনের কোন মানদণ্ড আছে কিনা, স্বামীর পায়ের নিচে স্ত্রীর জান্নাত এ কথাটি সঠিক কিনা, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নূরের তৈরি নাকি মাটির, সম্মিলিত মোনাজাত করা যাবে কিনা, সাওম রেখে গুল দিয়ে দাঁত মাজা যাবে কিনা ও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ এ সমস্ত জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্নগুলো নিয়ে শাইখ ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া কুরআন সুন্নাহর আলোকে জবাব দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “রামাদান বিষয়ক জিজ্ঞাসা (অষ্টম পাঠ)” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, রামাদান মাসে কবর-এর আযাব বন্ধ থাকে কিনা, সাহরী না খেলে সাওম হবে কিনা, কোনো কারণে যদি ঘুম থেকে উঠে দেখে শরীর নাপাক হয়ে গেছে তাহলে তার সাওম হবে কিনা, ধূমপান করলে অযু নষ্ট হবে কিনা, বিতির সালাত কি ১ রাকাত পড়া যায়, তারাবীর সালাত কত রাকাত, ইস্তিঞ্জা করার পরে কি ঢিলা ব্যবহার করবে নাকি পানি ব্যবহার করবে, নাকি উভয়টাই করবে, বিতর সালাত কীভাবে পড়বে, জায়নামাজের দো‘আ আছে কি, তারাবীর সালাতে ২ রাকাত ৪ রাকাত পর পর যে দো‘আ মোনাজাত আছে তা সঠিক কিনা, ১২ বা ১৪ বছরের বালক ইমামতি করতে পারবে কিনা, টিভি দেখা হারাম কিনা, বাসায় বউ মেয়ে নিয়ে জামা‘আত করে সালাত পড়া যাবে কিনা, চুরি ঠেকাতে কুকুর পোষা যাবে কিনা, বাচ্চার কারণে দেরি করে সালাত পড়লে সাওয়াব পাবে কিনা, মসজিদের চেয়ারে বসে সালাত পড়া শরী‘আতসম্মত কিনা, পরীক্ষার কারণে সাওম ভাঙ্গা যাবে কিনা, ও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ এ সমস্ত জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্নগুলো নিয়ে শাইখ ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া কুরআন সুন্নাহর আলোকে জবাব দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “রামাদান বিষয়ক জিজ্ঞাসা (সপ্তম পাঠ)” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, বালিশের উপর কুরআন রেখে তিলাওয়াত করা কি জায়েয, তারাবির সালাত কি ৮ রাকাত না ২০ রাকাত, ব্যাংক থেকে সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করলে সেই ব্যবসার ওপর যাকাত দিতে হবে কিনা, কুরআন দেওয়ার মানত করা যাবে কিনা, রামাদানে দ্রব্যমুল্যের ঊর্ধ্বগতি করলে কি গুনাহগার হবেন, স্বামী অসুস্থ থাকলে স্ত্রীর কি সেবা করা উচিৎ না কুরআন তিলাওয়াত করা উচিত, মোবাইল অথবা ট্যাব এ যে কুরআন এর সফটকপি থাকে তা পড়লে সাওয়াব হবে কিনা এবং এর জন্য অযু করতে হবে কিনা, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর মিরাজ কি স্বপ্নে হয়েছিল নাকি বাস্তবে, কুরআন ছুঁয়ে কিছু করবে বলে না করলে তাঁর বিধান কী ও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ এ সমস্ত জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্নগুলো নিয়ে শাইখ ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া কুরআন সুন্নাহর আলোকে জবাব দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “রামাদান বিষয়ক জিজ্ঞাসা (ষষ্ট পাঠ)” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, রমযান অবস্থায় মহিলারা মেহেদী দিতে পারবে কি, তারাবীর সালাত কি বাসায় একা একা পড়া যাবে কি, ইসলামী ব্যাংকের প্রফিট নেওয়া যাবে কি, তা সুদ হবে কি, টাকা ধার নেওয়ার পর টাকার মালিককে না পেলে কি করব, ইলেকট্রিক তাসবীহ দিয়ে তাসবীহ গণনা করা যাবে কি, সালাতের মধ্য অনেক ধরণের চিন্তা ধারণা চলে আসে কীভাবে সেটা দূর করব, সাওম রাখা অবস্থায় রান্নার করার সময় স্বাদ আস্বাদন করা যাবে কি, প্যাকেটের মধ্য যে সব মাংস থাকে তা হালাল হবে কি, গর্ভবতী মহিলাদের সাওম রাখার বিধান কী, কেউ যদি জাদুগ্রস্ত হয় তাহলে সে কী করবে, তারাবীর সালাত কয় রাকাত, ইফতারির টাকা মসজিদের কাজে বা অন্য কোনো কাজে ব্যবহার করা যাবে কি, তারাবীর সালাত মসজিদে দ্রুত পড়লে আমরা কী করব? ইত্যাদি। এ ছাড়াও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্ন নিয়ে শাইখ ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া কুরআন সুন্নাহর আলোকে জবাব দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “রামাদান বিষয়ক প্রশ্ন-উত্তর” শীর্ষক আলোচ্য ভিডিওটিতে, স্ত্রী সালাত না পড়লে স্বামীর কী করণীয়, মহিলারা জোরে কুরআন তিলাওয়াত করতে পারবে কিনা, সাওম রাখতে না পারলে কী করণীয়, ই‘তিকাফ ছাড়া মসজিদে অবস্থান করা যাবে কিনা, সাওম রেখে চুলে তেল, শ্যাম্পু ব্যবহার করা যাবে কিনা, ফজর সালাতের সুন্নাত পড়াবস্থায় যদি ফরয-এর ইকামত হয় তাহলে সুন্নাত বাদ দিয়ে ফরয পড়তে হবে কিনা, ফজর সালাতের সুন্নাত জামা‘আতের আগে পড়তে না পারলে কখন সুন্নাতটা পড়বেক, চোরের বিচার কীরূপ হবে, সাওম অবস্থায় রক্ত পরীক্ষা করা যাবে কি, ইফতারের আগে সম্মিলিত মুনাজাত করা যাবে কিনা, সাহরী না খেলে সাওম হবে কিনা, দিনের বেলায় কারো হায়েয শুরু হলে তার সাওম হবে কিনা, তাবিজ বা গাছের শিকড় চিকিৎসা কাজে ব্যবহার করা যাবে কি? কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম যদি মিথ্যা কথা বলে তার পিছনে সালাত আদায় করা যাবে কি? ইত্যাদি। এ ছাড়াও আরো অনেকগুলো ইসলামিক গুরুত্বপূর্ণ জীবন ঘনিষ্ঠ প্রশ্ন নিয়ে শাইখ ড. আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া কুরআন সুন্নাহর আলোকে জবাব দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    “আপনার দৈনন্দিন প্রশ্নোত্তর” শীর্ষক এ ভিডিও লেকচারটিতে সম্মানিত আলোচক ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী কুরআন ও সুন্নাহর আলোকে ঈমান ও আক্বীদা সম্পর্কে অতি গুরুত্বপূর্ণ কতিপয় প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন।

  • video-shot

    YOUTUBE

    মুসলিম জাতিকে উপহাস করার জন্য খৃষ্টানরা প্রতি বছর ১লা এপ্রিলকে অত্যন্ত জাকজমকের সাথে ‘এপ্রিল ফুল’ পালন করে আসছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, ‘এপ্রিল ফুল’ ইতিহাসের একটি জঘণ্যতম, ঘৃণ্য এবং হৃদয়বিদারক লোমহর্ষক ইতিহাস। এ দিনে লক্ষ লক্ষ মুসলিম ভাই-বোনেরা নির্মমভাবে প্রাণ হারিয়েছিল; কিন্তু আজ মুসলিম সন্তানরা খৃস্টানদের অনুসরণে সে দিনটিকে হাসি-খুশির দিন হিসেবে পালন করে থাকে। তাই সম্মানিত আলোচক মুসলিম জাতিকে সঠিক ইতিহাস জানা ও মিথ্যা ইতিহাস পরিহার করার জন্য কুরআন ও হাদীসের আলোকে ‘এপ্রিল ফুল ও মিথ্যা ইতিহাস’ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য তুলে ধরেছেন।

আপনার মতামত আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ