বর্ণনা

বান্দার উপর আল্লাহর অনুগ্রহের একটি হল, তিনি তার বান্দাদের জন্য ইবাদত-বন্দেগীর কিছু মৌসুম রেখেছেন, যেখানে তারা সৎ কাজ অধিকমাত্রায় পালন করবে, আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে সহায়ক কর্মসমূহ সম্পাদনে তারা প্রতিযোগিতায় নামবে। অতঃপর সে ব্যক্তি সৌভাগ্যবান যে এ মৌসুমগুলো যথার্থরূপে কাজে লাগাবে, অবহেলায়, গুরুত্বরহিত হয়ে তা অতিক্রান্ত হতে দেবে না। এ অনন্য বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত মৌসুমগুলোর একটি হল যিলহজের প্রথম দশক। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যিলহজের এ দিনগুলোকে পৃথিবীর সর্বোত্তম দিন বলে আখ্যায়িত করেছেন এবং এ সময়ে সৎ কাজ করার প্রতি তিনি উৎসাহ দিয়েছেন। শুধু তাই নয় বরং স্বয়ং আল্লাহ তাআলা এ দিবসগুলো নিয়ে শপথ করেছেন। ফজিলত ও মর্যাদায় অনন্য হওয়ার জন্য এতটুকুই যথেষ্ট; কেননা যিনি মহান তিনি মহিমান্বিত বিষয় ছাড়া শপথ করেন না। অতএব বান্দার উচিত এ দিনগুলোয় সৎ কর্ম বাড়িয়ে দেয়া, এ ক্ষেত্রে অধিকমাত্রায় শ্রম দেয়া, উত্তমভাবে এ দিনগুলোকে স্বাগত জানানো। বক্ষ্যমাণ প্রবন্ধে যিলহজের প্রথম দশক সংক্রান্ত কিছু ফজিলত বর্ণিত হয়েছে, সাথে রয়েছে ঈদুল আযহা ও কুরবানীর কিছু আহকাম।

আপনার মতামত আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ